সর্বশেষ

» হবিগঞ্জকে অপরাধ মুক্ত আদর্শ জেলা হিসাবে গড়ে তুলতে চাই || পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যা

প্রকাশিত: 06. January. 2021 | Wednesday

হবিগঞ্জকে অপরাধ মুক্ত আদর্শ জেলা হিসাবে গড়ে তুলতে চাই : পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যা

উমর ফারুক শাবুল, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি: হবিগঞ্জ পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যা বিপিএম পিপিএম বলেছেন জনগণের জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে গ্রাম্য দাঙ্গা, চুরি ডাকাতি, মদ জুয়া ইয়াবাসহ সকল প্রকার অপরাধ দমনে পুলিশ কাজ করে যাচ্ছে। আপনার স্কুল পড়ুয়া সন্তানকে বেশী আদর করতে গিয়ে মোবাইল কিনে দিবেন না। স্কুল লেভেলে থাকা অবস্থায় শিক্ষার্থীদের মোবাইল কিনে দিলে পরিনাম বেশীর ভাগ ক্ষেত্রেই ভালো হয়না। তাই সমাজ টাকে ভালো রাখতে নতুন প্রজন্মদের ঠিকভাবে দেখভাল করতে হবে। তিনি আরো বলেন দশ বছর পূর্বের হবিগঞ্জও বর্তমানের হবিগঞ্জের মধ্যে অনেক তফাৎ রয়েছে। এখানে রয়েছে অনেক সম্বাবনা টিলা,হাওড়বাওড়,চা বাগানসহ শিল্প করাখানার নগরী হবিগঞ্জ জেলা। বর্তমানে মামলা মোকদ্দমাসহ গ্রাম্য দাঙ্গা পূর্বের তুলনায় অনেকাংশে কমে এসেছে। আর তা শুধু সম্বব হয়েছে পুলিশ জনতা একসাথে কাজ করার ফলে। সকলের সহযোগিতায় হবিগঞ্জকে মাদক দাঙ্গাসহ সকল প্রকার অপরাধ মুক্ত আদর্শ জেলা হিসাবে গড়ে তুলতে চাই। আমি সকল প্রকার অপরাধ নির্মূলে মানুষের অন্তরকে শীল গালা করতে চাই। ০৬ জনুয়ারি বুধবার সকাল সাড়ে ১০ঘটিকায় হবিগঞ্জের বানিয়াচং থানা এলাকার ছান্দ ও মহল্লার সরদারগণের সাথে আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথা গুলো বলেন। বানিয়াচং থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ এমরান হোসেনের সভাপতিত্বে ও এসআই আব্দু রহমানের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বানিয়াচং সার্কেল শেখ মোহাম্মদ সেলিম,বানিয়াচং উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আমির হোসেন মাষ্টার, সাধারন সম্পাদক ইকবাল হোসেন খান, ওসি তদন্ত প্রজিতকুমার দাশ,সাবেক চেয়ারম্যান হায়দারুজ্জামান খান, ইউপি চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন,মাওলানা হাবিবুর রহমান, এরশাদ আলী, ছান্দ ও মহল্লার সর্দারদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, এনামুল হোসেন খান বাহার,আঙ্গুর মিয়া, আলহাজ্ব আবু জাফর,এস এম হাফিজুর রহমান, আলাউদ্দিন, আনুয়ার হোসেন, আরজু মিয়া প্রমুখ। এছাড়া সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ,ও থানা এলাকার সকল ছান্দও মহল্লার সর্দারবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শেখ মোঃ সেলিম বলেছেন বাংলাদেশে সরদার প্রথা শুরু হয়েছিল ঢাকা থেকে। ১৮৬০সালে ১২জন সরদার নিয়ে ঢাকায় কার্যক্রম শুরু করাহলে ও ১৯৫০ সালে বিলুপ্ত করা হয়। কিন্তু বর্তমানেও বানিয়াচংয়ে সরদার প্রথা চালু রয়েছে। তিনি মাদক জুয়াসহ সকল প্রকার অপরাধ দমনে সরদারদেরকে কঠোর হওয়ার আহবান জানান। মাদক দাঙ্গা চুরিসহ সকল প্রকার অপরাধ প্রবনতা যেন বৃদ্ধি না পায় সেদিকে সকল সরদারদের সজাগ দৃষ্টি রেখে চলতে হবে।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৮৭ বার

[hupso]
Shares