সর্বশেষ

» কবিতা ।। মৌচাকে ঢিল ।। শফিকুল ইসলাম সোহাগ

প্রকাশিত: 07. November. 2020 | Saturday

কবিতা ।। মৌচাকে ঢিল
শফিকুল ইসলাম সোহাগ

এক.
ধরার তলে পুষ্প ফুটে স্নিগ্ধমধুর গুণ টানে
অসুন্দর বেজাতীরা সব গোপন আঘাত হানে
আধাঁর কেটে নবীন আলো ঠিক উঠিবে ধরায়
মন তাগিদেই বেচে থাকা ঝরা কিংবা মরায়।

গগন শশী উঠবে জেগে মোদের পরান বাগে
সভ্য সমাজ গরব সবাই গভীর অনুরাগে
মানুষ গড়া সব মতবাদ যাবে বৃথা রোষে
মানবতার মুক্তি খুঁজো কুরআন হাদীস চষে।

ওরা তাগূত বাতিল- এই বলে এক অন্যটা
কপাল পোড়া অসভ্যরা দেখায় বিবেক শূন্যটা
বেয়ারা এক হয়ে আজ স্বাধীনতার হাকঁ ডাকে
আঘাত আনে ইসলামীত্বের শুভ্র সুন্দর মৌচাকে।

এই পৃথিবীর সজাগ আলো দেখিয়েছেন ধর্মটা
স্বার্থপর আজ মানুষ অধম বুঝিনা তার মর্মটা
এতো কিছু থাকার পরেও ধর্মের পিছে লাগিছ যে
সামনে চলার সভ্যতা আজ ভিত্তিটাই তো গড়ছে সে।

স্বাধীন মতবাদের নামে চলছে তোদের শুন্যতায়
আঘাত হানছে সভ্যতারই সমাজ বোধের পূণ্যতায়
মানুষ হল নর পশুরা তুইতো দেখি দূরে আজ
থাকতে সময় ঘরে ফির তুই ফেলে দিয়ে সকল লাজ।
আধুনিকের নামকাওয়াস্তে নীতিকথার হচ্ছে ক্ষয়
সময় হলে জাগবে সবই আল-কুরআনের হবে জয়
চোরাগলির পথ মাড়িয়ে সত্য ন্যায়ের পথ সাজান
গাফেলতির ঘুম ভেঙ্গে দাও মুয়াজ্জিন সেই আজান।

দুই.

মরুভূমির তপ্ত বাঁকে আলোর জ্যোতি হাসে
দিগন্তরে যার উছিলায় শান্তির পরাগ ছড়ায়
অভিশাপের কুটিল পাড়া এক নিমিষেই শেষ
কাল মহাকাল যায় ছড়িয়ে শুভ্রতারই রোদ।

বিরোধ চক্রের গোল মেটালো শুদ্ধতারই বানে
সালাম নিয়ে আসলো বাহক জিব্রাইলের ডানা
আসসালামু আলাইকুম রবে জাগল সারা জাহান
মুমিন তরে কমিনেরাও নাজাত পেলো সব।

ফুল ফসলের এই প্রীতিপদ- রঙচঙেরই হাট
বল শুনি কে বানালো আকাশচুম্বী পাহাড়
অসীম রবের সৃষ্টি সবই মুহাম্মদের (সা.)তরে
যার কারণে নিঃশ্বাস আর বিশ্বাস নিয়েই বাঁচা।

ধরার বুকে উদ্ভাসিত নাম মুহাম্মদ (সা.) যিনি
তখন থেকেই জাগল ধরায় প্রাণের হুলুস্থূল
ইহুদী আর বেদ্বীন যত নকশা আঁকে নীল
মাঝে মাঝে ছুঁড়ে মারে মৌচাকে বিষ ঢিল।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৮৮ বার

[hupso]
Shares